তাজা খবর:

ধুমপান কেড়ে নেয় আপনার সেক্স!                    আপনার ডেটকে আকর্ষণীয় করতে                    ২৪০ রানে অলআউট জিম্বাবুয়ে                    গোলাম আযমের জানাজায়ও নেই বিএনপি                    ‘হরতালের নামে নাশকতা চালালে কঠোর পদক্ষেপ’                    ল্যাপটপ চুরি হলে ফিরে পাবার উপায়                    গোলাম আযমের কফিনে জুতা নিক্ষেপ                    গোলাম আযমের জানাজা সম্পন্ন                    বিস্ফোরকসহ ৪ হুজি নেতা গ্রেপ্তার                    আবুধাবিতে জনশক্তি রপ্তানি শুরু করতে চায় বাংলাদেশ                    
  • রবিবার, ২৬ অক্টোবর ২০১৪, ১০ কার্তিক ১৪২১

বোদায় এক কিশোর আত্মহত্যা

বোদায় এক কিশোর আত্মহত্যা

বোদা পৌর শহরের কুড়ালীপাড়া এলাকায় সামিউল (১৬) নামের এক কিশোর কাঠাঁল গাছের সাথে গলায় রশ্মি

ল্যাপটপ চুরি হলে ফিরে পাবার উপায়

ল্যাপটপ চুরি হলে ফিরে পাবার উপায়

ল্যাপটপ চুরি গেলে আর্থিক ক্ষতির থেকেও বেশি ‍দুশ্চিন্তায় পড়তে হয়, ল্যাপটপের হার্ডডিস্কে জমা থাকা তথ্যাদি

আপনার ডেটকে আকর্ষণীয় করতে

আপনার ডেটকে আকর্ষণীয় করতে

প্রথম ডেটে যাচ্ছেন আপনি?  কিন্তু একটা অদ্ভুত টানাপোড়েন চলছে আপনার মনের মধ্যে৷ ভাবছেন

পাবনায় ৭১ আসামী গ্রেপ্তার ২১ রাউন্ড গুলি উদ্ধার

পাবনায় ৭১ আসামী গ্রেপ্তার ২১ রাউন্ড গুলি উদ্ধার

পাবনার দশটি থানা এলাকার বিভিন্ন স্থানে আলাদা অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন মামলার ৭১ জন

রাজশাহী মহানগর আ.লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে -স্বাস্থ্যমন্ত্রী

এফএনএস (এস.এইচ.এম তরিকুল ইসলাম; রাজশাহী)

25 Oct 2014   10:53:14 PM   Saturday BdST
A- A A+ Print this E-mail this

শেখ হাসিনার কোনো ক্ষতি হয়ে গেলে বাংলাদেশ অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক দেশ আর থাকবে না। মুখোশধারী ওই জামায়াত-বিএনপি বাংলাদেশকে সাম্প্রদায়িক দেশে পরিণত করবে। উন্নয়নের পথে ধাবিত হওয়া বাংলাদেশকে পিছিয়ে দেবে। জামায়াত-বিএনপি মুখোশধারী শয়তান। তারা বাংলাদেশের মানুষের সঙ্গে বেঈমানি করেছে। তাদের রাজনৈতিকভাবে প্রতিরোধ করতে আওয়ামী লীগ কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। আওয়ামী লীগ কর্মীদের আচার-আচরণে, নৈতিকতায় ভালো হতে হবে। নইলে শেখ হাসিনার ক্ষতি হয়ে যাবে। জামায়াত বিএনপি আন্দোলন করতে জানে না। তারা জানে বোমাবাজি আর ভাঙচুর করতে, পুলিশ হত্যা করাসহ সাধারণ মানুষকে পুড়িয়ে মারতে। শনিবার দুপুরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ডা. কায়ছার রহমান অডিটরিয়ামে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের প্রথম অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য ও স্বাস্থ্য পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এমপি।
নির্বাচন প্রসঙ্গে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বিএনপি এখন ইলেকশন চাচ্ছে। কিন্তু ইলেকশনের ট্রেন তারা মিস করেছেন। আগামী ২০১৯ সালের আগে তারা আর ট্রেন ধরতে পারবেন না। শেখ হাসিনা তাদের ডেকেছিলেন নির্বাচন করতে। কিন্তু তারা তাদের মুরুব্বি ও জামায়াত শিবিরের কথা শুনে নির্বাচনের বিরুদ্ধে আন্দোলন চালিয়ে যায়। জনগণের ওপর বোমাবাজি করেছেন, মানুষকে পুড়িয়ে মেরেছেন।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী উল্লেখ করে বলেন, মনে রাখবেন, জনগণ ছাড়া কোনো আন্দোলন হয় না। গত ৫ জানুয়ারির নির্বাচন করে বাংলাদেশর গণতন্ত্রকে রক্ষা করেছেন শেখ হাসিনা। সংবিধানের কোথাও লেখা নাই ৫ বছরের আগে ক্ষমতা ছাড়তে হবে। ২০১৯ সালের আগে কোনো নির্বাচন হবে না, হবে না। এ সময় ড. কামালকে উদ্দেশ্যে করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আপনি সংবিধান লিখেছেন। কিন্তু পাঁচ বছরের আগে নির্বাচন চাচ্ছেন। সংবিধানের কোথায় লেখা আছে যে ৫ বছরের আগে নির্বাচন করতে হবে। এজন্য অহেতুক অপ্রসঙ্গিক কথা বলে দেশের জনগণের মাঝে আর কোনো বিভ্রান্তি ছড়াবেন না।
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের সম্মেলন উদ্বোধন করার কথা থাকলেও তিনি না আসায় সম্মেলনের উদ্বোধন ঘোষণা করেন মোহাম্মদ নাসিম। দীর্ঘ নয় বছর পর অনুষ্ঠিতব্য ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বজলুর রহমানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি, আন্তর্জাতিক সম্পাদক লে. কর্নেল (অব) মোহাম্মদ ফারুক খান এমপি, কার্যনির্বাহী সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান এমপি, এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, আখতার উজ্জামান, মির্জা আজম প্রমুখ।
সম্মেলনে সংহতি জানাতে উপস্থিত হয়ে ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা তার বক্তব্যে বলেন, আমি মনে করি ১৪ দলের সাথে আওয়ামী লীগের রক্তের বন্ধন সৃষ্টি হয়েছে। যা নষ্ট করা খুবই কঠিন। গত ৫ জানুয়ারির মতো এতো ভাল নির্বাচন বাংলাদেশে কখনো হয়নি বলেও এ সময় উল্লেখ করেন বাদসা। সম্মেলনে রাজশাহী জেলা ও মহানগরের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ এমপি ছাড়াও নাটোর, জয়পুরহাট ও নওগাঁ জেলার আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং এমপিরা উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে, দুপুর ২টায় প্রথম অধিবেশন শেষ হয়। পরে দ্বিতীয় অধিবেশন শুরু হয়। এ অধিবেশনে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের ৭১ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হবে। এ প্রতিবেদন সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় লেখা পর্যন্ত রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসাবে দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনকে নির্বাচিত করা হয়েছে বলে নাম প্রকাশ না করার সর্তে এফএনএস-কে নিশ্চিত করেছেন অনুষ্ঠানে আসা দলের এক শীর্ষ নেতা। আর সাধারণ সম্পাদকসহ অন্য পদগুলোর বিষয়ে সার্কিট হাউসে আলোচনা চলছিল। আলোচনায় সমঝোতা না হলে ভোটের মাধ্যমে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচন করা হবে।
এর আগে দুপুরে নব নির্বাচিত মহানগর কমিটির সভাপতি ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন তার বক্তব্যে বলেন, আমি কর্পোরেশনের মেয়র থাকা অবস্থায় যে কাজ করেছি তা বাংলাদেশের কোন জায়গাতেই হয় নি। দলের শীর্ষ নেতাদের কাছে ততবির করিয়ে রাজশাহী সিটির জন্য যে বরাদ্দ নিয়ে এসেছি তা দেশের কোথাও পায়নি। কিন্তু মহানগরবাসীর কাছ থেকে আমি আমার কাজের মূল্যায়ন পাইনি। মহানগরবাসী যদি আমার কাজ, সাংগঠনিক দক্ষতা, মেধার মূল্যায়ন করতো তাহলে আমার প্রতিদ্বন্দ্বী আনারস নির্বাচিত হতো না। যে কারণেই আর কোনদিন আমি লিটন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন করব না বলেও ঘোষণা দেন।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
আপনার পছন্দের এলাকার সংবাদ
পড়তে চাই:
comments powered by Disqus
৪৮/১, উত্তর কমলাপুর, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০
ফোন : +৮৮ ০২ ৯৩৩৫৭৬৪
E-mail: info@fairnews24.com
fnsbangla@gmail.com
Development by : eMythMakers.com